ট্র্যাফিক নিয়ম ভাঙলেই ১৫ দিনের মধ্যে যাবে নোটিশ! রাস্তায় বের হওয়ার আগে জানুন নয়া এই নিয়ম

ট্র্যাফিক নিয়ম ভাঙলেই ১৫ দিনের মধ্যে যাবে নোটিশ! রাস্তায় বের হওয়ার আগে জানুন নয়া এই নিয়ম

ব্যুরো রিপোর্ট:  যদি আপনি ট্র্যাফিক নিয়ম অমান্য করেন তাহলে ১৫ দিনের মধ্যে নোটিশ পাঠানো হবে। রোড ট্রান্সপোর্ট মন্ত্রকের তরফে সম্প্রতি নয়া এক নিয়ম জারি করা হয়েছে।

মন্ত্রকের তরফে জারি করা নয়া বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, state enforcement এজেন্সিকে ট্র্যাফিক নিয়ম যারা ভাঙছে সেই সমস্ত মামলাতে ১৫ দিনের মধ্যে অভিযুক্তকে নোটিশ পাঠাতে হবে।

শুধু তাই নয়, জরিমানা না হওয়া পর্যন্ত আইন ভাঙার সমস্ত তথ্য সুরক্ষিত রাখতে হবে। ইলেকট্রনিক রেকর্ড আলাদা ভাবে রাখতে হবে। রোড, ট্রান্সপোর্ট এবং হাইওয়ে মন্ত্রক সম্প্রতি সংশোধিত মোটর ভেইক্যাল অ্যাক্ট ১৯৮৯ অনুযায়ী বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে।

ইলেকট্রনিক মনিটরিং এবং রোড সেফটির উপর বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। জারি করা বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী জরিমানা নেওয়া এবার ইলেকট্রিনিক্স ডিভাইসের মাধ্যমে করতে হবে। এই বিষয়ে মন্ত্রকের তরফে বেশ কয়েকটি টুইট করা হয়েছে।

নয়া নিয়ম অনুসারে ট্র্যাফিক নিয়ম নজর রাখার জন্যে ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসের ব্যবহার করতে হবে। শুধু তাই নয়, এই বিষয়ে অন্য কোনও প্রযুক্তিও ব্যবহার করা যেতে পারে বলে জানাচ্ছে। প্রত্যেকটি রাজ্য এই বিষয়ে বিভিন্ন ধরনের প্রযুক্তি ব্যবহার করে তা নিশ্চিত করবে।

ইতিমধ্যে এই সংক্রান্ত নির্দেশ জারি করা হয়েছে। যে ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস কিংবা প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে তাতে স্পিড ক্যামেরা, সিসিটিভি ক্যামেরা, স্পিড গান, এবং অটোমেটিক নম্বর প্লেটকে চিহ্নিত করতে পারবে এই ডিভাইস ব্যবহার করতে বলা হয়েছে।

শুধু তাই নয়, এক্ষেত্রে অন্য কোনও প্রযুক্তিও যদি ব্যবহার করা হয় তাহলে এই বিষয়গুলি নিশ্চিত করার কথা বলা হয়েছে।

মন্ত্রকের তরফে বলা হয়েছে যে এই সমস্ত ডিভাইস রাজ্য সরকার ঠিক করবে যে কোথায় কোথায় লাগানো হবে। অর্থাৎ রাজ্য সড়কগুলিতে, জাতীয় সড়কগুলিতে নাকি গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে এই সমস্ত ডিভাইস বসানো হবে তা রাজ্য সরকার ঠিক করবে।

তবে মন্ত্রক বলছে ১০ লাখেরও বেশী মানুষ বসবাস করে এমন শহরে এই সমস্ত ডিভাইস লাগানোর কথা বলা হচ্ছে। জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে এমন ১৩২ টি শহরের কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

তবে এই ডিভাইস গুলির কারণে যাতে ট্র্যাফিকে কোনও সমস্যা না হয় সেই বিষয়টি খেয়াল রাখার কথা বলা হয়েছে।

মন্ত্রকের তরফে জারি করা নির্দেশিকা অনুযায়ী, এই সমস্ত অত্যাধুনিক ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসে লোকেশনের ফুটেজ, ডেট এবং সময় উঠে থাকে। স্পিড লিমিটের ক্ষেত্রে কড়া হচ্ছে। একটা গতির উপরে গাড়ি চালালে ধরা পড়বে ডিভাইসে।

যে কোনও জায়গাতে গাড়ি পার্কিং, বাইক চালানোর সময় হেলমেট না পড়লে ফাইন করা হবে। আর জরিমানার করার সময় এই সমস্ত ফুটেজ ব্যবহারের কথা বলা হচ্ছে।।

এছাড়াও বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রেও মোটা অঙ্কের জরিমানার কথা কেন্দ্রীয় সড়ক এবং পরিবহণ মত্রকের তরফে করা হয়েছে। মন্ত্রকের উদ্দেশ্যে আগামীদিনে দুর্ঘটনার পরিমাণ কমিয়ে আনা এবং চালকের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করা।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.